সিলেটে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য যে সুখবর দিলেন প্রধানমন্ত্রী

পাহাড়ি ঢল ও টানা বর্ষণে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের জেলা সিলেট ও সুনামগঞ্জে ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। বানের পানির কারণে এই দুই জেলার লাখ লাখ মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন।

কোনো কোনো এলাকায় পানি ঘরের চালা স্পর্শ করেছে। ঘরবাড়ি তলিয়ে যাওয়ায় মানুষজন এখন দিশেহারা। কাজেই সিলেটের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি মেরামতের জন্য পাঁচ কোটি টাকা অনুদান দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এই টাকা থেকে সিলেটের পাঁচ হাজার পরিবারকে ১০ হাজার টাকা করে প্রদান করা হবে। সিলেটের জেলা প্রশাসক মো. মজিবর রহমান এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন । রোববার (৩ জুলাই) জেলা প্রশাসককের কার্যালয়ের

সম্মেলন কক্ষে বন্যা পরিস্থিতি, পুনর্বাসন ও ত্রাণ বিতরণ নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান তিনি। আজ সোমবার থেকে শুরু হবে এই টাকা বিতরণ। জেলা প্রশাসক বলেন, মূলত এবারের বন্যায় যেসব পরিবারের

ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তাদেরকেই এই টাকা প্রদান করা হবে। তিনি আরো জানান, প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিল থেকে সিলেটে পাঁচ কোটি টাকা অনুদানের চেক পাওয়া গেছে। এই টাকা থেকেই প্রথম ধাপে ক্ষতিগ্রস্ত পাঁচ হাজার পরিবারকে সহায়তা করা হবে। পর্যায়ক্রমে অন্যদেরও সহায়তা প্রদান করা হবে।

এর আগে গত ১৫ জুন থেকে সিলেটে ভয়াবহ বন্যা দেখা দেয়। স্মরণকালের ভয়াবহ এ বন্যায় জেলায় প্রায় ৪০ হাজারের ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হলেও এখনো বেশিরভাগ মানুষ পানিবন্দি অবস্থায় আছেন। রোববার সংবাদ সম্মেলনে জেলা প্রশাসক জানান, বর্তমানে ৩৫ হাজার ৬৮৫ জন আশ্রয়কেন্দ্রে রয়েছেন।

তিনি বলেন, সিলেট জেলায় ৬৫৪টি আশ্রয়কেন্দ্রে ২ লাখ ৩০ হাজার ৬৩২ জন লোক আশ্রয় গ্রহণ করেন। অনেক এলাকায় বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ায় লোকজন আশ্রয়কেন্দ্রে ছেড়ে নিজেদের বাসা-বাড়িতে ফিরে গেছেন। তবে, এখনও ৪১৬টি আশ্রয়কেন্দ্রে ৩৫ হাজার ৬৮৫ জন লোক অবস্থান করছেন। আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে ৩১ হাজার ৯৭টি গবাদিপশু নিয়ে এসেছিলেন বন্যাকবলিতরা। বর্তমানে আশ্রয়কেন্দ্রে ৫৩০টি গবাদিপশু রয়েছে।

সূত্রঃ বাসস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *