আওয়ামী লীগের কাছ থেকে হেল্প নেয়ার কোনো প্রশ্নই আসে না: সিইসি

নিউজ ডেক্স: প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, নির্বাচনকালীন সরকারের কাছে যে সহায়তা আমাদের প্রাপ্য সেটা আমাদের দিতে হবে।

যদি সেটা না দেন বা দেওয়া না হয় তাহলে আপনারা যদি আশাও করেন সুন্দর ইলেকশন হবে, সুন্দর ইলেকশন হয়তো হবে না। আমরা সরকারের কাছ থেকে হেল্প নেব। আওয়ামী লীগ থেকে হেল্প নেব না, প্রশ্নই আসে না।

মঙ্গলবার (২৮ জুন) বিকেলে নির্বাচন কমিশন ভবনে ইভিএম নিয়ে আওয়ামী লীগসহ ১৩ রাজনৈতিক দলের সাথে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন তিনি। নির্বাচনে ভোটিং পদ্ধতি ঠিক করতে দলগুলোর মতামত নিচ্ছে ইসি।

তিন ধাপের শেষে আমন্ত্রণ জানানো হয় আওয়ামী লীগ’সহ ১৩ রাজনৈতিক দলকে। বেশিরভাগ দল ইভিএম এর পক্ষে থাকলেও বিরোধী মত আর সংশয় ছিলো অনেকের। এ প্রসঙ্গে সিইসি বলেন, আমরা যখন দায়িত্ব নিই,

কিছুদিন পর থেকেই ইভিএম নিয়ে কথাবার্তা পত্রপত্রিকায় চাউর হয়েছিল। এর বিপক্ষেই বেশি কথাবার্তা হয়েছে। শুরু থেকে ইভিএম সম্পর্কে তেমন ধারণা ছিল না। ব্যক্তিগত ধারণাও ছিল না। এরই মধ্যে ইভিএম নিয়ে অনেক কাজ করেছি। এখন মোটামুটি ধারণা আছে।

তিনি বলেন, আজ বড় দলের অনেকেই এসেছেন। মন্ত্রী (সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের) স্বয়ং নিজেই এসেছেন, যেটা আমি প্রত্যাশাও করিনি। আপনি এসেছেন, আপনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ। আজকের আলোচনাটা ইভিএমের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকবে। আপনারা ইভিএমের পক্ষে-বিপক্ষে বলতে পারেন।

আপনাদের কথা আমরা শুনবো। আলোচনার মাধ্যমে পরবর্তী সময়ে বস্তুনিষ্ঠ সিদ্ধান্তে উপনীত হব।’ ইভিএম এর পক্ষে মত জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকার নির্বাচনে কোনো হস্তক্ষেপ করবে না। ভোট হবে ইসি’র অধীনে। পরে সাংবাদিকদের ওবায়দুল কাদের জানান, আগামী নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে বলে বিশ্বাস তার। নিবন্ধিত ৩৯ রাজনৈতিক দলকে সংলাপের আমন্ত্রণ জানিয়েছিল ইসি। তবে সেই দাবিতে সাড়া দেয়নি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিতে অটল বিএনপি’সহ বেশ কয়েকটি দল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.