বিয়ের দাবিতে টানা ৫ দিন ধরে অনশন তরুণীর, লাপাত্তা প্রেমিক ঘটালেন লঙ্কাকাণ্ড!

সংবাদ: দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক ভাটা পড়ায় লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বিয়ের দাবিতে গত পাঁচদিন ধরে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছেন ইসরাত হাহান রিয়া

নামে এক তরুণী (১৮)। বিয়ে না করা পর্যন্ত তিনি সে বাড়িতেই অবস্থান করবেন বলে দাবি তার।এর আগে, গত মঙ্গলবার (২৮ জুন) সকাল ১০টায় কিশোরগঞ্জ থেকে হাতীবান্ধা উপজেলার গোতামারী ইউনিয়নের

দইখাওয়া ধওলাটারী গ্রামের মোস্তাফিজুর মোস্তাকিনের বাড়িতে অনশন করছে ওই তরুণী। মোস্তাফিজুর মোস্তাকিন (২২) হাতীবান্ধা উপজেলার দইখাওয়া ধওলাটারী গ্রেমের আমির আলী ছেলে।

তিনি ঢাকার সাভার এলাকার একটি গার্মেন্টসে কর্মরত ছিলেন। ওই তরুণীও সাভারেই একটি গার্মেন্টসে কর্মরত ছিলেন। অনশনরত ইশরাত জাহান জানিয়েছেন, এক বছর ধরে গার্মেন্টসের চাকরি করার সুবাদে তার পরিচয় হয় মোস্তাকিনের সাথে।

এরপর গড়ে ওঠে প্রেমের সম্পর্ক। ইশরাতের দাবি, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে মোস্তাকিন। বিয়ে করবেন বলে মোস্তাকিন আশ্বাস দিলেও ঢাকা থেকে পালিয়ে গ্রামের বাড়িতে চলে যায় সে। আমি তার ঠিকানা সংগ্রহ করে তার বাড়িতে বিয়ের

দাবিতে আরও দুইবার অবস্থান করলেও তারা আমার সাথে প্রতারণা করে আমাকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। প্রতারণার শিকার হয়ে মোস্তাকিনের বাড়িতে আবারও এসেছি বিয়ের দাবিতে। আমি কিছুই বুঝি না, আমি তাকে বিয়ে করবো। আমাকে বিয়ে না করলে আমি আইনের আশ্রয় নিবো, বিয়ে ছাড়া বাড়ি ছাড়বো না।

ঘটনার পর থেকেই পলাতক থাকা এ ব্যাপারে কোনো ইশরাতের প্রেমিক মোস্তাকিনের কোনো বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। মোস্তাকিন এর বাবা আমীর আলী জানান, এ ঘটনায় আমি কিছুই জানি না। আমার বাড়িতে একটি মেয়ে গত পাঁচদিন ধরে অবস্থান করছে।

গোতামারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মোনাবেরুল হক মোনা ঘটনার সত্যাতা নিশ্চিত করে বলেন, ওই যুবতীর অভিভাবক আসলে বিষয়টি সমাধান করা হবে। হাতীবান্ধা থানার ওসি এরশাদুল আলম জানান, ওই যুবতীর পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় এখনও কোনো অভিযোগ আসেনি, অভিযোগ পেলে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.