ফেরিতে করে আটলান্টিক পাড়ি, যা বললেন মিরাজ (ভিডিও সহ)

সংবাদ: আটলান্টিক মহাসাগর বা অতলান্ত মহাসাগর পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম মহাসাগর। এর আয়তন ১০৬,৪৬০,০০০ বর্গকিলোমিটার (৪১.১ মিলিয়ন বর্গমাইল);

এটি পৃথিবীপৃষ্ঠের প্রায় এক পঞ্চমাংশ এলাকা জুড়ে অবস্থিত। ইউরোপীয় ধারণা অনুযায়ী, এটি “পুরাতন পৃথিবীকে” “নতুন পৃথিবীর” থেকে আলাদা রাখে।

এদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরুর বেশি সময় বাকি নেই। আর এর মধ্যেই ফেরিতে করে আটলান্টিক মহাসাগর পাড়ি দিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন ক্রিকেটাররা।

সেন্ট লুসিয়া থেকে ডোমিনিকা যাওয়ার পথে ফেরি ব্যবহার করেন টাইগাররা। ভয়ঙ্কর উত্তাল আটলান্টিকের বুকে দীর্ঘ ৫ ঘণ্টা ভেসে ভেসে যেতে হয়েছে।

এই ভ্রমণে রীতিমতো বিধ্বস্ত জাতীয় দলের কয়েকজন ক্রিকেটারসহ বেশ কয়েকজন সদস্য।ডোমিনিকায় যাত্রাপথে সমুদ্রের বড় বড় ঢেউ আর ‘মোশন সিকনেসে’

শরীর গুলিয়ে উঠেছে রিয়াদ, শরিফুল, সোহান ও তাদের ম্যানেজার নাফিস ইকবালসহ একজন সাপোর্ট স্টাফের। ‘মোশন সিকনেসে’ আক্রান্ত হয়ে তাদের কয়েকজন বমিও করেন ফেরিতে।

তবে বিভীষিকাময় এ অভিজ্ঞতাকে রোমাঞ্চকর মনে হয়েছে বাংলাদেশ দলের স্পিন অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ। এ ভ্রমণ তার স্মরণীয় হয়ে থাকবে বলে জানান তিনি। উত্তাল আটলান্টিকের ভিডিও আপলোড করে তার ক্যাপশনে মিরাজ লিখেছেন, ‘একমাত্র প্রশংসা আল্লাহর জন্য যিনি আমাদের তার সৃষ্টির অনেক নিদর্শন দেখার সুযোগ করে দিয়েছেন। তাই আমরা আল্লাহর কাছে অনেক কৃতজ্ঞতা ও শুকরিয়া আদায় করছি, আলহামদুলিল্লাহ! মাশআল্লাহ মহান রাব্বুল আলামীনের সৃষ্টি অনেক সুন্দর! সেই ছোটবেলায় আটলান্টিক মহাসাগরের কথা বইতে পড়েছি আজকে আটলান্টিক মহাসাগর পাড়ি দিয়ে খুবই ভালো লাগছে! নতুন একটা এক্সাইটমেন্ট কাজ করছিল এবং আমরা যখন পাড়ি দিচ্ছিলাম তখন অনেক আনন্দ করছিলাম আবার অনেকে ভয়ও পাচ্ছিলাম। আজকের দিনটা অনেক স্মরণীয় হয়ে থাকবে!’

সেই ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.