আইনমন্ত্রীর বক্তব্যের কড়া জবাব দিলেন রুমিন ফারহানা

জাতীয় সংসদের চলতি অধিবেশনে পদ্মা সেতু ও বিএনপি নিয়ে বেশি কথা বলা হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা।

তার এই বক্তব্যে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক। বেশ কড়া ভাষায় রুমিনের কথার জবাব দেন তিনি।

অন্যদিকে জননিরাপত্তা বিভাগের বরাদ্দের ছাঁটাই প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে আইনমন্ত্রীর বক্তব্যের পাল্টা জবাব দেন রুমিন ফারহানা। আইনমন্ত্রীর বক্তব্যকে তিনি পুরো সংসদের জন্য লজ্জার বলে মন্তব্য করেন।

বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা গতকাল সংসদে বলেছিলেন, চলতি বাজেট অধিবেশনে বাজেট নিয়ে আলোচনা না হয়ে পদ্মা সেতু, খালেদা জিয়া ও বিএনপিকে নিয়েই বেশি আলোচনা হয়েছে।

আজ তার এ বক্তব্যের জবাব দিতে গিয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, আমরা পদ্মা সেতু নিয়ে কথা বলব না কী নিয়ে কথা বলবো? আমরা কি উনার (রুমিন ফারহানা) কাপড়-চোপড় নিয়ে কথা বলব?

আমি তো তা করব না। আইনমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের পাল্টা জবাব দিয়েছেন রুমিন ফারহানা। বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে জননিরাপত্তা বিভাগের অর্থ বরাদ্দের প্রস্তাবের ছাঁটাইয়ের আলোচনায় অংশ নিয়ে রুমিন ফারহানা বলেন,

যুক্তিবিদ্যার সবচেয়ে বড় ফ্যালাসি হচ্ছে যখন কোনো যুক্তি থাকে না, তখন ব্যক্তিগত আক্রমণ করা। যখন যুক্তি থাকে না, তখন ব্যক্তিগত আক্রমণ আসে। উনি আমার কথার কোনো যুক্তি না পেয়ে শেষমেশ আমার পোশাক নিয়ে আলোচনা হবে কি না,

এমন অভব্য বক্তব্য দিয়েছেন যা আমরা আইনমন্ত্রীর কাছে আশা করি না। প্রধানমন্ত্রী একজন নারী, জাতীয় সংসদের স্পিকার একজন নারী। তারপরও এই ধরনের কথা যখন আইনমন্ত্রীর মুখ থেকে আসে তখন পুরো সংসদের জন্য লজ্জাজনক।

তিনি বলেন, উনাকে মনে করিয়ে দিই পদ্মা সেতু নিয়ে ওনারা আলোচনা করতেই পারেন। ১৪৭ বিধিতে আলোচনাও হয়েছে। সরকারি দলের সদস্য ও আমরাও আলোচনায় অংশ নিয়েছি। কিন্তু বাজেট অধিবেশনে পদ্মা ও বিএনপিকে নিয়ে আলোচনা হয়েছে, তখন আমি দাবি করেছিলাম পদ্মা বাজেট নাম দেওয়ার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.