বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিল কিশোর, রোদ থেকে বাঁচাতে নিজের জামা খুলে ছোট ভাইয়ের মাথায় দিল বড় ভাই!

কথায় আছে ভাই বড় ধন, রক্তের বাঁধন। বাবার অভাব করলে পূরন! আমাদের সমাজের মধ্যে যে চার জ্ঞাতি সম্পর্ক বিদ্যমান তারমধ্যে সবচেয়ে

প্রবল দৃঢ় জ্ঞাতিসম্পর্ক হচ্ছে রক্তের সম্পর্ক। ভাই আমাদের রক্তসম্পর্কীয় আবারও প্রমাণ হলো। তীব্র রোদ। প্রচণ্ড উত্তাপে গা যেন ঝলসে যায়। এরই ভেতর ছোট ভাইকে সাথে নিয়ে রাস্তা চলছিল বড় ভাই।

সেও কিনা একটি শিশু। কিন্তু তা হলে কী হবে- বড় ভাই বলে কথা; তার একটি দায়িত্ব আছে না! সে যে ছোট ভাইয়ের জন্য বটবৃক্ষ। তাই নিজের জামা খুলে ছোট ভাইয়ের মাথার ওপর রাখল সে।

যেন রোদে কষ্ট না পায় ছোট ভাই। অতঃপর ভাইয়ের মাথার ওপর স্নেহের হাত রেখে আবার হাঁটা ধরলো দুজন। বুধবার আলআরাবিয়া জানায়, এই ঘটনাটি ঘটেছে আলজেরিয়ার উয়ার্গলা প্রদেশে।

ওই বড় ভাইয়ের নাম হুজাইফা। আর ছোট ভাই হলো- আব্দুর রহমান। তারা এভাবে পথচলার সময় স্থানীয় একজন অপেশাদার ফটোগ্রাফার তাদের ক্যামেরাবন্দী করে। পরে ছবিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেন তিনি।

পরেই ওই ছবি বিশ্বব্যাপী ব্যাপকহারে ভাইরাল হয়। জানা যায়, ঘটনার দিন উয়ার্গলায় তাপমাত্রা ছিল ৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপরে। এ আবহাওয়ায় একজন বড় মানুষের জন্যই রোদের মধ্যে হাঁটাচলা কষ্টকর। কিন্তু আব্দুর রহমান শিশু হলেও তার চেয়ে যে হুজাইফা বড়,

সে তো আর ছোট ভাইকে রোদে পুড়তে দিতে পারে না। রিয়াদ নামে স্থানীয় এক ফটো সাংবাদিক ছবিটির ব্যাপারে ফেসবুকে বিস্তারিত জানালেন। তিনি লিখেন, ইয়াকুব (২৮) নামে উয়ার্গলার এক নাগরিক ছবিটি তোলেন। রিয়াদ জানান, গত ২ জুন প্রচণ্ড রোদের মধ্যে কাজে জাচ্ছিলেন ইয়াকুব। পথিমধ্যে এই দৃশ্যটি দেখে সাথে সাথে ক্যামেরাবন্দী করেন। পরের ঘটনা সবারই জানা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *