মন্ত্রী ‘আই লাভ ইউ ছাত্রলীগ’ বলতেই উচ্ছ্বসিত নেতাকর্মীরা ঘটালেন কাণ্ড!

রাজনীতি: স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, সততা ও আদর্শের মধ্য দিয়ে ছাত্রদের জীবন ধারণ করতে হবে।

জীবনে সফল হতে হলে সুশিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। সুশিক্ষায় নিজেকে যোগ্য করে তুলতে হলে ছাত্রজীবনের বিকল্প নেই। প্রতিটি ছাত্রকেই মনে রাখতে হবে,

টাকা রোজগারের সময় জীবনে অনেক আসবে। কিন্তু এই ছাত্রজীবন আর ফিরে পাওয়া যাবে না। গতকাল শুক্রবার বিকেলে নিজ নির্বাচনী এলাকা কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার পোমগাঁও গ্রামের নিজ বাড়িতে স্থানীয়

ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে এসব কথা বলেন মন্ত্রী। মন্ত্রী বলেন, আমিও ছাত্রজীবনে তোমাদের মতো ছাত্রলীগ করেছি। রাজনৈতিক জীবনে আমাকে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে। লাকসামে অনেক ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে আমাকে

রাজনীতি করতে হয়েছে। তবুও জীবনে সফল হয়েছি, কোনো ষড়যন্ত্র আমাকে দাবিয়ে রাখতে পারেনি। মো. তাজুল ইসলাম বলেন, শত বছরের উন্নয়ন পরিকল্পনায় দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি ২০৪১ সালের উন্নত বাংলাদেশের পরিকল্পনা করেছেন। সফলতার পথে হাঁটা বাংলাদেশ এখন মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। দরিদ্রতা কমেছে, মানুষের মাথাপিছু আয় বেড়েছে। এর সবই হয়েছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর যোগ্য নেতৃত্বের কারণে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর কুমিল্লার নির্বাহী প্রকৌশলী মীর্জা মো. ইফতেখার আলী, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর কুমিল্লার নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ নাসরুল্লাহ, কুমিল্লার সহকারী পুলিশ সুপার (লাকসাম সার্কেল) মুহিতুল ইসলাম, মনোহরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোহেল রানা,

উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবদুল কাইয়ুম চৌধুরী, মনোহরগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম, এলজিআরডি মন্ত্রীর উন্নয়ন সমন্বয়কারী ও যুবলীগ নেতা মো.কামাল হোসেন, যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মো.শাহাদাত হোসেন, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি কামরুজ্জামান শামীম, সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন বিপ্লব প্রমুখ।

মন্ত্রী ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশে আরো বলেন, প্রকৃত ছাত্ররা ছাত্ররাজনীতি করবে, কোনো অন্যায়কে প্রশ্রয় দেওয়া যাবে না। কোনো অপরাধের সঙ্গে ছাত্রলীগের সম্পৃক্ততা থাকবে না। বড়দের সম্মান ও ছোটদের স্নেহ করতে হবে। সততা ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করে ছাত্রলীগকে এগিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান তিনি। এদিকে, বক্তব্যের একপর্যায়ে মন্ত্রী ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশে ‘আই লাভ ইউ ছাত্রলীগ’ বলতেই উল্লাসে ফেটে পড়েন উপস্থিত নেতাকর্মীরা। এ সময় তারা মন্ত্রীকে হাত নেড়ে অভিবাদন জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.