পদ্মা সেতুর নাটবল্টু খুলে গ্রেফতার ‘সাবেক শিবিরকর্মী’ সম্পর্কে যা জানাল পুলিশ

সংবাদ: পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাটবল্টু খোলার ভিডিও ভাইরাল হওয়ার আরেকটি ঘটনায় ‘সাবেক এক শিবিরকর্মীকে’

গ্রেফতার করেছে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যাণ্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট-সিটিটিসি। ২৭ বছর বয়সী ওই যুবকের নাম মাহদী হাসান।

তার বাড়ি মুন্সীগঞ্জ জেলায়। বুধবার রাতে তাকে লক্ষ্মীপুর থেকে গ্রেফতার করা হয় বলে সিটিটিসির প্রধান ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মো. আসাদুজ্জামান জানান।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকার মিন্টো রোডে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, পদ্মা সেতুর নাট মাহদী হাসান পরিকল্পনা করেই খুলেছেন। রেঞ্জ ব্যবহার করে

তিনি কাজটা করেছেন বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন।… পদ্মা সেতুকে সমালোচনার মধ্যে ফেলতেই তার এ পরিকল্পনা। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়,

গত ২৬ জুন পদ্মা সেতু যখন সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হল, তার আগের রাতেই পরিকল্পনা সাজানো হয়। আসাদুজ্জামান বলেন, রোববার খুব
সকালে তারা পদ্মা সেতুর জাজিরা প্রান্তে যায়। কিন্তু অনেক মানুষ থাকায় সকালে তারা কাজটি করতে পারেনি। পরে বিকাল ৩টার দিকে নাট খুলে ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেয়। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, তার (মাহদী) অতীত ইতিহাস জানলেই বুঝতে পারবেন, এটা কেন করেছে। তামিরুল মিল্লাত মাদ্রাসায় পড়াশোনা করে কবি নজরুল কলেজে অনার্সে ভর্তি হয়েছিল সে। কিন্তু শিবিরের সঙ্গে জড়িত হওয়ায় আর পড়াশোনা শেষ করতে পারেনি।

মাহদীর বিরুদ্ধে পদ্মা সেতু উত্তর থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। এর আগে গত রোববার পদ্মা সেতু যান চলাচলের জন্য খুলে দেওয়ার দিন বাইজীদ তালহা (৩১) নামের এক যুবককে রাজধানীর শান্তিনগর থেকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি। তিনিও সেতুর রেলিংয়ের নাট খোলার টিকটক ভিডিও বানিয়ে ইন্টারনেটে ছেড়েছিলেন। তাকে সাত দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে সিআইডি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.