প্রেমিক বিবাহিত জেনে যোগাযোগ বন্ধ করলেন প্রেমিকা, ক্ষুব্ধ হয়ে বাড়িতে গিয়ে লঙ্কাকাণ্ড ঘটালেন প্রেমিক!

সংবাদ: যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়ায় মধ্যরাতে প্রেমিকার বাড়িতে গিয়ে ধ’র্ষণের চেষ্টাকালে ধরা পড়েছে প্রেমিক। বুধবার (২০ জুলাই) রাতে টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলার

ডুবাইল ইউনিয়নের কোপাখী গ্রামে এমন ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় থানায় ধ’র্ষণচেষ্টার অভিযোগে মামলা হয়েছে। জানা যায়, ডুবাইল ইউনিয়নের ছোট ডুবাইল গ্রামের মো. মোশারফ হোসেনের ছেলে

পাপন (৩০) পাশ্ববর্তী কোপাখী গ্রামের কলেজ পড়ুয়া এক মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। সম্পর্কের ৬ মাস পর ওই কলেজছাত্রী জানতে পারে তার প্রেমিক পাপন বিবাহিত এবং ১ সন্তানের জনক।

পাপন তার সঙ্গে প্রতারণা করে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলেছে বিধায় সে সকল প্রকার যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। এতে ক্ষি’প্ত হয়ে পাপন গভীর রাতে ওই প্রেমিকার বাড়িতে ঢুকে ধ’র্ষণের চেষ্টা চালায়।

ওই শিক্ষার্থীর চিৎকারে পরিবারের লোকজন বের হয়ে পাপনকে আটকে রাখে। সকালে স্থানীয় ইউপি সদস্য লিয়াকত হোসেনের মাধ্যমে থানায় খবর দেয় ভুক্তভোগীর পরিবার। দুপুরে পাপনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

এ বিষয়ে দেলদুয়ার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. নাসির উদ্দিন মৃধা জানান, তাদের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। পাপন বিবাহিত জেনে ওই কলেজছাত্রী যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়ায় সম্পর্কে ফাটল ধরে।

রাতে পাপন ভুক্তভোগীর বাড়িতে গিয়ে ধ’র্ষণের চেষ্টা চালায়। ভুক্তভোগী এবং তার পরিবার আটকে রেখে থানায় খবর দিলে পাপনকে আটক করা হয়। ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা রুজু করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.