এমন প্রতারক হতে সাবধান থাকবেন : শাবনূর

বিনোদন: বাংলা সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা শাবনূর। তিনি বাংলাদেশের চলচ্চিত্র শিল্পের অন্যতম সফল অভিনেত্রী। স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যার কবলে পড়েন সিলেটবাসী। এমন পরিস্থিতিতে শোবিজের অনেক তারকা নিজ উদ্যোগে বানভাসি মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

তারকাদের কেউ কেউ আবার বিত্তবান থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষকেও বানভাসিদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন। আর এই সুযোগই কাজে

লাগানোর পরিকল্পনা করেন কিছু প্রতারক। যারা তারকাদের নামে ফেসবুকে ফেক আইডি খুলে বন্যার্তদের সাহায্যের নামে মানুষের কাছ থেকে টাকা তুলছে।

ঢাকাই ছবির সফল অভিনেত্রী শাবনূরের নাম ও ছবি ব্যবহার করে মানুষের কাছ থেকে টাকা তুলছে প্রতারকরা। আর এ খবর শাবনূরের কানেও পৌঁছে গেছে।

প্রতারকদের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন নায়িকা। পাশাপাশি তাদের (প্রতারক) ফাঁদে পা না দিতে সাধারণ মানুষকে সতর্ক করেছেন। শাবনূর তার ফেসবুক আইডিতে লিখেছেন,

‘আমার নাম এবং ছবি ব্যবহার করে কিছু অসাধু ব্যক্তি এমন আইডি খুলে মানুষের কাছে ত্রাণের নামে টাকা চাচ্ছে! আপনারা সবাই এমন প্রতারক হতে সাবধান থাকবেন!’প্রতারকদের হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি লেখেন, ‘আমি এর আগেও বহুবার বিভিন্ন জায়গায় বলেছি যে, আপনারা আমার নামে ফেক আইডি খুলে এভাবে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করবেন না, যাতে করে আমার ইমেজ ক্ষতিগ্রস্ত হয়! আমি কখনোই চাইনা আমার কারণে কারও ক্ষতি হোক! কিন্তু আমি বারবার নিষেধ করার পরেও যারা প্রতিনিয়ত এভাবে আমার নামে ফেক আইডি খুলে মানুষকে ঠকিয়ে যাচ্ছে, আমি তাদের নামে আইনের আশ্রয় নিতে বাধ্য হবো।’ অনুরাগীদের উদ্দেশ্যে নায়িকা লিখেছেন, ‘আপনারা সবাই এমন অসৎ ব্যক্তি হতে সাবধান থাকবেন। ধন্যবাদ সবাইকে।’ ভক্তদের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়াতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরব হয়েছেন শাবনূর। কিন্তু তিনি সরব হওয়ার অনেক আগে থেকেই শাবনূরের নাম ব্যবহার করে অনেকেই ফেসবুকে ফেক অ্যাকাউন্ট খুলেছে। এ প্রসঙ্গে শাবনূর আগেই জানিয়েছিলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে আমি খুব বিরক্ত। দীর্ঘদিন শুনে আসছি, আমার নামে ফেসবুকে অনেকেই আইডি খুলেছেন। আমার নাম ভাঙিয়ে অর্থনৈতিক সুবিধা আদায়সহ নানা ধরনের অনৈতিক কাজ করছেন। এমনকি ইউটিউব চ্যানেল চালুর পর সেখানে আপলোড করা ভিডিও পোস্ট করে কপিরাইট করে নিচ্ছে তাদের মাধ্যমগুলো। আমার চ্যানেলের ভিডিও নিয়ে উল্টো আমাকে কপিরাইট ক্লেইম দিচ্ছে! এসব অসাধু ব্যক্তিকে সতর্কবার্তা দিয়েছি লাইভে। প্রথমবার সাবধান করেছি। না শোধরালে শিগগিরই আমি আইনি পদক্ষেপ নেব।’

প্রসঙ্গত, সিনেমা পাড়ায় একটা কথা প্রচলিত আছে, দর্শক শুধু শাবনূরকে দেখার জন্যই সিনেমা হলে যেতেন। নব্বই দশকে জনপ্রিয়তার আকাশ ছুঁয়েছিলেন তিনি। ক্যারিয়ারের তুঙ্গে থাকা অবস্থায় বিয়ে করে অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে পাড়ি জমান। দীর্ঘদিন ধরেই সেখানে ছেলে আইজান, মা, ভাই, বোনসহ বসবাস করছেন নায়িকা। মাঝেমধ্যে দেশে এলেও খুব বেশি দিন থাকেন না। অনেক দিন নতুন সিনেমায় অভিনয় না করলেও শাবনূরের জনপ্রিয়তায় ভাটা পড়েনি। ভক্তদের কাছে তার আবেদন যেন আগের মতোই।

Leave a Reply

Your email address will not be published.