পদের বিনিময়ে আপত্তিকর প্রস্তাব, ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদকের কথোপকথন ভাইরাল

পদের বিনিময়ে আপত্তিকর প্রস্তাব-সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের ম্যাসেঞ্জারের কথোপকথন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম

ফেসবুকে ভাইরাল। গত তিনদিন ধরে পদের বিনিময়ে আপত্তিকর প্রস্তাবের কথোপকথন ভাইরাল হলে এখন তা টক অব দ্যা বেলকুচিতে পরিণত হয়েছে।

তৃণমূল ছাত্রলীগের নেতারা অবিলম্বে ওই দুই নেতাকে পদ থেকে অব্যাহতির দাবি জানিয়েছেন। ভাইরাল হওয়া ম্যাসেজে লিখিতব্য কথোপকথনে দেখা যায়,

উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবকে একজন নেত্রী ম্যাসেঞ্জারে নক করে পদ দাবি করেন। তখন তিনি অনেক কথা বলার এক পর্যায়ে তার সাথে ‘সেক্স’ করার প্রস্তাব দেন। পদ পেতে ওই নেত্রী রাজীও হয়ে যায়।

পরবর্তীতে সেই নেত্রী পদ না পেয়ে ছাত্রলীগের সভাপতি রবিন হাসান রকিকে ম্যাসেঞ্জারে নক করলে সেও কথা বলার এক পর্যায়ে একই প্রস্তাব দেয়। এ অবস্থায় ওই ম্যাসেঞ্জারের কথোপকথনটি ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়। এতে সাধারণ শিক্ষার্থীসহ নেতাকর্মীদের মাঝে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে।

যদিও ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদক বিষয়টি ফেক বলে দাবি করেছেন। তবে অনেক নেতাকর্মী বলছেন, সিলেকশনের মাধ্যমে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হবার পরই তারা দু’জন উপজেলায় নানা অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছেন।

এ বিষয়ে বেলকুচি উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিব জানান, ফেসবুকে যেটা ভাইরাল হয়েছে সেটা মিথ্যা ও বানোয়াট। অপরদিকে, বেলকুচি উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিন হাসান রকি জানান, বিষয়টি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট।

প্লে স্টোর থেকে ফেক চ্যাট নামে একটি অ্যাপসের মাধ্যমে ফেক আইডি খুলে আমাদের মানসম্মান নষ্ট করার জন্য একটি মহল এমন অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। বিষয়টি নিয়ে থানায় জিডি দায়ের করা হয়েছে এবং মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.