ফের কুসিকের নবনির্বাচিত কাউন্সিলর কারাগারে

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচন সম্পন্নের বেশ কিছুদিন পেরিয়ে গেলেও কোনোভাবেই শেষ হচ্ছে না এ নির্বাচন নিয়ে নানা আলোচনা-সমালোচনা।

প্রতিনিয়ত জয় পরাজয় ও নবনির্বাচিত কাউন্সিলরদেরকে নিয়ে চলছে নানামুখী আলোচনা। গতকাল কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের (কুসিক) নবনির্বাচিত এক কাউন্সিলরকে বাড়িঘরে হামলা ও ভাঙচুরের মামলায় কারাগারে

পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। কারাগারে যাওয়া জাহাঙ্গীর হোসেন বাবুল কুসিকের ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক এবং সদ্য নির্বাচিত কাউন্সিলর। গতকাল বুধবার দুপুরে কুমিল্লার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আব্বাস উদ্দিনের আদালতে হাজির হয়ে জামিনের

আবেদন করেন জাহাঙ্গীর। পরে আদালত তাঁর জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাঁকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। বিকেলে তাঁকে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়। রাতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন কুমিল্লা আদালত পুলিশের পরিদর্শক মো. মজিবুর রহমান।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ২০২০ সালের ৩০ মার্চ কুমিল্লা নগরের সংরাইশ এলাকায় দুই পক্ষের সংঘর্ষে হাজি আবদুল মতিন নামের একজনের মৃত্যু হয়। এর জেরে জাহাঙ্গীরের নেতৃত্বে প্রতিপক্ষের বাড়িঘরে ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগ ওঠে। এ ঘটনায় পলিন আক্তার নামের এক নারী কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানায়

জাহাঙ্গীরসহ (প্রধান আসামি) ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। জাহাঙ্গীরকে নিয়ে কুসিকের নবনির্বাচিত তিন কাউন্সিলর কারাগারে গেলেন। এর আগে ২১ জুন কুসিকের ১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর কাজী গোলাম কিবরিয়া ও ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর একরাম হোসেন বাবু পূজামণ্ডপ ও মন্দিরে সহিংসতার মামলায় কারাগারে রয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.