নিত্যপণ্যের দাম নিয়ে স্বস্তির বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী

সংবাদ: গত কয়েক মাস ধরে এমনিতে নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধিতে নাকাল স্বল্প আয়ের মানুষ। পাশাপাশি প্রতি মাসেই বাড়ছে এলপিজি গ্যাসের দাম।

করোনা পরবর্তী পরিস্থিতিতে জনগণের আয় কমলেও ব্যয় মাত্রাতিরিক্ত বেড়ে গেছে। সব মিলিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছে সাধারণ মানুষ।

এদিকে তেল-গ্যাসের দাম নিয়ে স্বস্তির বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী। আন্তর্জাতিক বাজারে মূল্যবৃদ্ধির পরও জ্বালানি তেল ও গ্যাসের দাম বাড়ানো হবে না বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার রাতে সংসদ অধিবেশনে ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ আশ্বাস দেন। জ্বালানির দাম আবার বাড়তে পারে এমন গুঞ্জনের মধ্যেই জাতীয় সংসদে স্বস্তির এই বার্তা দিলেন সরকারপ্রধান।

এর আগে ধারাবাহিক ভর্তুকির চাপে সরকার জ্বালানির দর সমন্বয়ের কথা ভাবছে বলে গত ১৪ জুন জানান বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু। প্রধানমন্ত্রী সংসদে সেই শঙ্কা দূর করে বলেন, আন্তর্জাতিক মূল্যবৃদ্ধির কারণে জ্বালানি তেল ও প্রাকৃতিক গ্যাসে সরকারের যে ঘাটতি হবে,

তা ভোক্তা পর্যায়ে চাপিয়ে দেওয়া হবে না। যে কারণে ভর্তুকি ব্যয় বাড়বে। ভর্তুকি ব্যয় সহনশীল রাখা এবং আমদানির ওপর চাপ কমানোর লক্ষ্যে যথাযথ ব্যবস্থা সরকার নেবে। জনগণকেও নিজ নিজ জায়গা থেকে ভূমিকা পালন করতে হবে। দীর্ঘ বক্তব্যে সরকারপ্রধান বৈশ্বিক অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে জনগণকে মিতব্যয়ী হওয়ার পরামর্শ দেন। পাশাপাশি বিলাসদ্রব্য পরিহার, এমনকি দেশেই চিকিৎসা নেওয়ার অনুরোধ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.