বিয়ের বাজার নিয়ে ব্যস্ত পরিবার, বর পছন্দ না হওয়ায় লঙ্কাকাণ্ড ঘটালেন কনে!

বরিশালের গৌরনদী উপজেলায় লিজা আক্তার (১৮) নামে এক কলেজছাত্রী গলায় ফাঁ’স দিয়ে আ’ত্মহত্যা করেছেন, বিয়ের আগের দিন।

বুধবার (১৩ জুলাই) সন্ধ্যায় উপজেলার বার্থী ইউনিয়নের বেজগাতি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। লিজা ওই গ্রামের ফল ব্যবসায়ী আব্দুল হক সরদারের মেয়ে এবং

বার্থী ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। লিজার বাবা বলেন, বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) লিজার বিয়ে। এ জন্য আত্মীয়-স্বজন থেকে শুরু করে গ্রামবাসীকে দাওয়াত দেওয়া হয়েছে।

এমনকি বিয়ের খাবারের বাজারও সম্পন্ন করা হয়েছে। বিয়ের বাজার ও অনুষ্ঠান আয়োজন নিয়ে পরিবারের সবাই ব্যস্ত ছিল। এরই মধ্যে সন্ধ্যায় ঘরে আড়ার সঙ্গে লিজাকে ঝুলতে দেখেন স্বজনরা।

পরে উদ্ধার করে গৌরনদী উপজেলা হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ থানায় নিয়ে যায়। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, লিজার বর পছন্দ হয়নি।

এ নিয়ে পরিবারের সঙ্গে বেশ কয়েকবার বাগবিতণ্ডা হয়েছে। তাদের ধারণা এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে লিজা আত্মহত্যার পথ বেছে নেন। তবে ‍এ অভিযোগ অস্বীকার করে লিজার বাবা বলেন, বিয়েতে রাজি হওয়ার পরই পাকা কথা হয় ছেলেপক্ষের সঙ্গে। ‍এমনকি লিজা যেভাবে বলেছে, সেভাবেই বিয়ের বাজার করা হয়েছে। তারপরও কি কারণে আত্মহত্যা করেছে তা বলতে পারছি না।

গৌরনদী থানার এসআই মো. শাহ্জাহান বলেন, খবর পেয়ে গৗরনদী উপজেলা হাসপাতালের জরুরি বিভাগ থেকে লিজা আক্তারের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসি। ঘটনার প্রাথমিক তদন্ত শেষে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.