সাত বছরের বালককে গিলে খেল কুমির, পেট কাটতে চায় গ্রামবাসী

চাম্বল নদী থেকে সাত বছর বয়সী এক বালককে কুমির টেনে নিয়ে গিলে ফেলেছে বলে অভিযোগ তুলেছে গ্রামবাসী। পরে ওই কুমিরকে জাল, দড়ি,

লাঠি ইত্যাদি দিয়ে ধরেন স্থানীয়রা। সোমবার (১১ জুলাই) এমন ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশের শেওপুরের রঘুনাথপুর গ্রামে। পুলিশ জানিয়েছে,

অন্তর সিং (৭) নামে একটি ছেলেকে একটি কুমির ধরে নিয়ে গিয়েছে বলে আমরা জেনেছি। ছেলেটি নদীতে গোসল করতে নেমেছিল। সাঁতারকাটা অবস্থায় তাকে কুমিরে গিলেছে বলে খবর পেয়েছি।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, যাতে ছেলেটিকে কুমির চিবাতে না পারে তা নিশ্চিত করার জন্য এর চোয়ালের মধ্যে একটি বাঁশ ছুঁড়ে দেওয়ার পাশাপাশি এটিকে আটকে রাখে।

আর তারা কুমিরের পেট কেটে বালকটিকে বের করতে উদ্বুদ্ধ হন। পরে ঊর্ধ্বতন পুলিশ এবং বন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে গ্রামবাসীদের কুমিরকে হত্যা করা থেকে বিরত রাখে।

পরিবারের দাবি, কুমিরের পেট থেকে বালকটিকে বের করা গেলে, সে বেঁচে যেত। যত ক্ষণ না কুমিরের পেট থেকে বালকটিকে বের করা হচ্ছে, তত ক্ষণ তাঁরা কুমিরটিকে ছাড়বেন না বলে দাবি জানান।

রঘুনাথপুর থানার ইন-চার্জ শ্যাম বীর সিংহ তোমর বলেছেন, গোসল করতে নেমে নদীর গভীরে চলে গিয়েছিল বালকটি। গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন, বালকটিকে গিলে খেয়েছে কুমির। এরপর লাঠি, দড়ি, জাল দিয়ে কুমিরটি ধরেন স্থানীয়রা। তার পর টেনে-হিঁচড়ে কুমিরটিকে ডাঙায় নিয়ে আসেন। সূত্র: দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া ও আনন্দবাজার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.