ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হ’ত্যা, বেরিয়ে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য

মীরসরাইয়ে মো. ইব্রাহিম রাজু নামের (২৭) এক ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হ’ত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। শনিবার (৯ জুলাই) রাত ১০টার দিকে উপজেলার জোরারগঞ্জ

বিশ্বরোড দরবারটিলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। রাত ১টার দিকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃ’ত্যু হয়।

রাজু জোরারগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। তিনি ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউয়াচল টিলা এলাকার মহিউদ্দিন ও সুরমা বেগমের পুত্র।

৩ ভাই ১ বোনের মধ্যে রাজু সবার বড়। রাজু হত্যার সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে নুরনবী ও সোহেল নামে দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ।

জানা গেছে, শনিবার রাত ১০টার দিকে দরবার টিলা এলাকায় রাস্তার পাশে বসে ছিলেন রাজু। এসময় একদল সন্ত্রাসী কিছু বুঝে ওঠার আগে তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করে পালিয়ে যায়।

পরে আশপাশের লোকজন উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে নেয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১টার চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সাবেক এক ছাত্রলীগ নেতা ক্ষো’ভ প্রকাশ করে বলেন,

রাজনীতিতে প্রতিযোগিতা কিংবা গ্রুপিং থাকতে পারে, তাই বলে ঈদের আগের রাতে এভাবে হ’ত্যা করবে? এ কেমন রাজনীতি। তিনি হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানান।

জোরারগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক আব্দুল বাতেন বলেন, গতকাল রাতে জোরারগঞ্জ ইউনিয়নের দরবারটিলা এলাকায় রাজু নামে একজন খুন হয়েছেন। তার লাশ এখন ময়নাতদন্তের জন্য চমেক ম’র্গে রয়েছে।

তিনি আরেও বলেন, ইতোমধ্যে হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে নুরনবী ও সোহেল নামে দু’জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোনও মামলা দায়ের হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.