বরের গায়ের রং কালো, দুই পাক ঘুরেও মণ্ডপ ছাড়লেন কনে! অতঃপর…

বরের গায়ের রং পছন্দ না। সাত পাকের দুই পাক ঘুরেও বিয়ের মণ্ডপ থেকে বেরিয়ে গেলেন কনে। ৬ঘণ্টা ধরে বুঝিয়েও লাভ হয়নি। বিয়ে ভাঙলেন কনে।

গত বৃহস্পতিবার (৭ জুলাই) ভারতের উত্তরপ্রদেশের এটাওয়ায় এই ঘটনা ঘটেছে। মণ্ডপে বরের হাত ধরে এক বার ঘুরলেন, দুই বার ঘুরলেন। তার পরেই আচমকা দাঁড়িয়ে গেলেন কনে।

এই পাত্রকে বিয়ে করবে না সে। মণ্ডপ থেকে সোজা বেরিয়ে গেলেন তরুণী। আর বিয়েতে বসলেনই না। এটাওয়ার ভারথানার রবি যাদবের সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয়েছিল নীতা যাদবের।

গত বৃহস্পতিবার বসে বিয়ের আসর। হঠাৎ সাত পাকের মাঝে মণ্ডপ ছেড়ে বেরিয়ে যান নীতা। কনের অভিযোগ, বরের গায়ের রং কালো! বিয়ের আগে অন্য পাত্রকে দেখানো হয়েছিল। এখন মণ্ডপে অন্য এক পাত্রকে হাজির করা হয়েছে,

যার গায়ের রং একেবারেই পছন্দ না নীতার। এমন পাত্রকে বিয়ে করবেন না তিনি। অন্যদিকে, বিয়ের আনুষ্ঠানিকতায় ১৫ দিন ধরে কেনাকাটা থেকে খাবারের আয়োজন সবই হয়েছে। এরপর বরকে চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর

করিয়ে বিয়ে সম্পন্ন হয়েছিল রবি ও নীতার। কিন্তু কনে বেঁকে বসার পর ৬ঘণ্টা ধরে বোঝানোর চেষ্টা করে তার পরিবার কিন্তু কাজ হয়নি। কনের সাফ কথা, এই পাত্রকে তিনি বিয়ে করবেন না। নিরুপায় হয়ে ফিরে যায় বর এবং বরযাত্রী।

এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে বরের বাবা। তার অভিযোগ, কনেকে হাজার হাজার টাকার গহনা দেয়া হয়েছিল। সেই গহনা ফেরত দেয়নি কনের পরিবার পাত্র রবি জানিয়েছেন, পুরো ঘটনায় তার জীবন বিপন্ন হতে বসেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.