লোডশেডিংয়ে বাতাস খেতে নদীর তীরে গিয়েই বিপাকে কিশোরী

এবার দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে লোড শেডিংয়ের কারণে বাড়ির পাশের নদীর তীরে ঘুরতে গিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছে এক কিশোরী। বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে

করতোয়া নদীর পাড়ে এ ঘটনা ঘটে। রাতেই কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে দুজনের নাম উল্লেখ করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় মামলা করেন। পরে রাতে পৃথক পৃথক

অভিযানে স্বপন চন্দ্র দাস ও মোরসালিন মিয়া নামে মামলার দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ওই কিশোরীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, বুধবার সন্ধ্যায় ওই কিশোরী তার ১০ বছর বয়সী

ফুফাতো বোনকে নিয়ে নদীর পাড়ের বাতাসে বসতে যায়। সেখানে তার আরেক কিশোর বন্ধুর সঙ্গে দেখা হয়। তারা তিনজন সেখানে দাঁড়িয়ে গল্প করছিল। সেখানে আসামিরা উপস্থিত হয়ে

কিশোরীর বন্ধুকে ভয় দেখিয়ে পাঠিয়ে দেয়। পরে ওই কিশোরীকে পার্শ্ববর্তী একটি পাটক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করে তারা। এক পর্যায়ে কিশোরীর ছোট বোনের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এলে আসলে আসামিরা পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে ঘোড়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু হাসান কবির বলেন, আসামিদের আটকের পর আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে দিনাজপুরের আদালতে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে কিছু আলামত সংগ্রহ করেছি। কিশোরীকে পরীক্ষার জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.