হাটেই মা’রা গেল ৫ লাখ টাকার গরু- বিস্তারিত জেনে নিন

প্রচণ্ড গরমে এক খামারির পাঁচ লাখ টাকা দামের গরু মা’রা গেছে। হাটে গরুটির দাম উঠেছিল ৪ লাখ টাকা।

তবে খামারি পাঁচ লাখ টাকায় গরুটি বিক্রি করতে চেয়েছিলেন। বৃহস্পতিবার (০৭ জুলাই) বিকেলে কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর

উপজেলা সদরের গরুর হাটে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার পুমদী ইউনিয়নের পুমদী গ্রামের

বড়বাড়ির আল-আমিনের গরুটি হোসেনপুর সদরের হাটে তোলা হয়। এ সময় প্রচণ্ড গরমে গরুটি অজ্ঞান হয়ে পড়ে।

এরপর গরুর মালিক আল-আমিন বরফ, পানি ও আইসক্রিম দেওয়ার পরও জ্ঞান আর ফেরেনি গরুটির। গরুটির মৃত্যুতে মালিকের কান্নায় আকাশ-বাতাস ভারী হয়ে ওঠে।

গরুর মালিক আল-আমিন বলেন, দুই বছর লালন পালন করে ফ্রিজিয়ান জাতের গরুটি বড় করেছি। বৃহস্পতিবার হোসেনপুর হাটে আনার পর তীব্র গরমে গরুটি অসুস্থ হয়ে পড়ে। তখন গরুটির চিকিৎসার জন্য ডাক্তার খুঁজেও পাওয়া যায়নি। আমার সব শেষ হয়ে গেছে। হাটে ক্রেতারা গরুটি ৪ লাখ টাকায় কিনতে চেয়েছিলেন। কিন্তু আমি ৫ লাখ টাকায় বিক্রি করতে চেয়েছিলাম।

এ প্রসঙ্গে হোসেনপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. আব্দুল মান্নান জানান, হাটে আমাদের একটি মেডিক্যাল টিম দায়িত্বে ছিল। গরু অসুস্থ হওয়ার বিষয়টি আমাকে জানানো হয়নি। বিষয়টি জানতে পারলে গরুটির চিকিৎসার ব্যবস্থা নেওয়া যেত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *