বৃটেনের ইতিহাসে প্রথম ভারতীয় বংশোদ্ভূত প্রধানমন্ত্রী?

আন্তর্জাতিক: নিজ দলে (কনজারভেটিভ পার্টি) বিদ্রোহের জেরে বৃহস্পতিবার পদত্যাগ করেছেন বৃটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

বরিস জনসনের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে দুই দিনের মধ্যে পদত্যাগ করেন দেশটির ৪১ জন মন্ত্রী। বরিসের ছেড়ে যাওয়া চেয়ারে কে বসবেন,

তা এখনো স্পষ্ট নয়। দেশটির রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, বৃটেনের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে রয়েছেন একজন ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্যক্তি। তার নাম ঋষি সুনাক। পদত্যাগ করা ৪১ জন মন্ত্রীদের মধ্যে অর্থমন্ত্রী ঋষি সুনাকও ছিলেন।

হিন্দুস্তান টাইমস এর এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য দিয়ে তার সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরা হয়েছে। প্রতিবেদন থেকে জানা যায়ঃ ১৯৮০ সালের ১২ জুন সাউথহ্যাম্পটনে জন্মগ্রহণ করেছিলেন সুনাক।

তার বাবা ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসের জেনারেল প্র্যাক্টিশনার ছিলেন। আর, মায়ের নিজস্ব ওষুধ দোকান ছিল। যদি সুনাক প্রধানমন্ত্রী হন, তাহলে তিনি বৃটেনের ইতিহাসে প্রথম ভারতীয় বংশোদ্ভূত প্রধানমন্ত্রী হবেন।

রাজনীতিতে আসার আগে ব্যবসা করতেন ৪২ বছরের সুনাক। একটি বিনিয়োগকারী সংস্থার সহ-প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন। সুনাক ইনফোসিস দম্পতি নারায়ণ মূর্তি এবং সুধা মূর্তির মেয়ে জামাই।

২০০৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় ইনফোসিস দম্পতির মেয়ে অক্ষতার সঙ্গে প্রথম দেখা হয় সুনাকের। পরবর্তীতে তারা বিয়ে করেন। অনুষ্কা এবং কৃষ্ণ নামে তাদের দুই মেয়ে আছে। ঋষি এবং অক্ষতা মোট ৭৩০ কোটি ডলার সম্পত্তির মালিক। ২০২২ সালে প্রকাশিত সানডে টাইমসের ধনীদের তালিকায় তারা ২২২ নম্বরে আছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.