কোন এলাকায় কত ঘণ্টা লোডশেডিং জানিয়ে দেওয়া হবে : প্রধানমন্ত্রী (ভিডিও সহ)

মানুষের কষ্ট লাঘবে লোডশেডিংয়ের সময় জানিয়ে দিতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, এলাকাভিত্তিক রুটিন করে কোন এলাকায় কত ঘণ্টা লোডশেডিং হবে তা জানিয়ে দেওয়া হবে। যাতে সে সময়টা মানুষ প্রস্তুত থাকতে পারে, মানুষের কষ্টটা যেন আমরা লাঘব করতে পারি।

বুধবার (৬ জুলাই) সকাল ১০টায় গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শেখ কামাল আইটি বিজনেস ইনকিউবেটরের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ বানিয়েছি, বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়িয়েছি এবং বাংলাদেশের প্রতিটি ঘরে আমরা বিদ্যুৎ পৌঁছে দিতে সক্ষম হয়েছি।

তিনি বলেন, ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে জ্বালানি তেলের দামসহ বিভিন্ন পণ্যের দাম অনেক বেড়েছে। ফলে আমাদের যে নিজস্ব গ্যাস আছে তা ছাড়া

বিদ্যুৎ কেন্দ্র চালিয়ে রাখাটাই এখন অনেক কষ্টকর হয়ে গেছে। আমরা এলএনজি আমদানি করতাম, তার দামও বেড়ে গেছে। শুধু তাই না, যেসব শিপমেন্ট
হয় সেটার ভাড়াও অনেক বেড়ে গেছে। যেটা ৮০০ কোটি টাকায় পেতাম সেটার দাম বেড়ে এখন ১ হাজার ৫০০ থেকে ২ হাজার কোটি টাকারও বেশি হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে কিছু সময়ের জন্য (প্রতিদিন) বিদ্যুৎ উৎপাদন কমাতে বলব, যাতে বিদ্যুৎ উৎপাদনে ব্যবহৃত জ্বালানি সংরক্ষণ করা যায়। সরকারপ্রধান বলেন, ‘বিদ্যুতে এখনও আমাদের মোটা অঙ্কে ভর্তুকি দিতে হচ্ছে। কিন্তু আমরা আর কত ভর্তুকি দেব? তাই সকলকে বিদ্যুৎ ব্যয়ে সাশ্রয়ী হওয়ার পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী।

সেই ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.