বিএনপির বৈঠক থেকে আ. লীগ নেতার ভাই গ্রেপ্তার

রাজনীতি: বরিশালের গৌরনন্দী এক বিএনপি নেতার বাড়ি থেকে ১২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার রাতে বার্থী ইউনিয়নের

বিএনপি নেতা আমিনুল হক শাহীনের বাড়ি থেকে তাদের আটক করা হয়। শাহীন ওই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী ছিলেন।

আজ মঙ্গলবার আটককৃতদের বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করে। পরে এই মামলায় তাদেরকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। পুলিশের দাবি,

তারা ওই বাড়িতে ‘গোপন বৈঠক’ করছিলেন। বৈঠকে সরকার বিরোধী নাশকতার পরিকল্পনা করা হচ্ছিল বলে পুলিশের মামলায় উল্লেখ আছে।

এদিকে ওই বৈঠক থেকে গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে এক আওয়ামী লীগের নেতার ভাই রয়েছে বলে জানা গেছে। আগৈলঝাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ইলিয়াস তালুকদারের ভাই ইত্তিকার তালুকদারকে ওই বৈঠক থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ নিয়ে স্থানীয় নেতাদের মধ্যে চলছে আলোচনা।

গেপ্তারকৃত অন্যরা হলেন- আমিনুল হক শাহীন, কাইয়ুম খান, মন্টু খান, রেজাউল মোল্লা, রুহুল আমীন গাজী, জাফর হাওলাদার, এনায়েত হোসেন, সামীউল বেপারী, মুন্না বেপারী, আকাশ খন্দকা, ইত্তিকার তালুকদার।

জেলা বিএনপির সদস্য ও গৌরনদী পৌর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জহির সাজ্জাদ হান্নান শরীফ কালের কণ্ঠকে বলেন, শাহীনের বাবার মৃত্যুবার্ষিকী পালনের জন্য একটি প্রস্ততি সভা চলছিল। সেখান থেকে তাদের গেপ্তার করে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দেওয়া হয়েছে। আমরা দলের পক্ষ থেকে এ ঘটনার নিন্দা জানাই। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গৌরনদী মডেল থানার এসআই আবদুল হক কালের কণ্ঠকে জানান, সরকার বিরোধী নাশকতার জন্য গোপন বৈঠক চলাকালে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গেপ্তারকৃতদের আদালতে পাঠানোর প্রস্ততি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *