আগামী সংসদ নির্বাচন নিয়ে যা বললেন সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত

গতকাল আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে অর্গানাইজেশন ফর ইকোনমিক কো-অপারেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (ওইসিডি) ভুক্ত

১৪টি দেশের কূটনীতিকরা ইসির সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠক শেষে প্রতিনিধিদলের পক্ষে সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি চুয়ার্ড বলেন,

নাগরিকদের ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে, দেশের গণতন্ত্র আরও কার্যকর ও শক্তিশালী করতে, গণমাধ্যম ও সুশীল সমাজের কার্যকর ভূমিকা নিশ্চিতে সহায়ক অবস্থা

তৈরি করতে আমাদের সদস্য দেশগুলো নির্বাচন কমিশনকে যেকোনো প্রকার সহযোগিতা দিতে প্রস্তুত।
ওই বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার ডি হাস, বৃটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারটন ডিকসন,

ইউরোপীয় ইউনিয়নের রাষ্ট্রদূত চার্লস হোয়াইটলি সহ অন্যদের সাথে উপস্থিত ছিলেন কানাডার হাইকমিশনার লিলি নিকোলসও। তিনি বলেছেন,

আগামী বছর অবাধ, সুষ্ঠু ও অন্তর্ভুক্তিমূলক নির্বাচন নিশ্চিত করতে কী ব্যবস্থা নেওয়া হবে সে বিষয়ে আলোচনা করতেই তারা নির্বাচন কমিশনে বৈঠক করেছেন। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এসবকিছুতে নজর রাখছে বলেও নিশ্চিত করেছেন তিনি।

নিজের অফিসিয়াল টুইটার একাউন্ট থেকে হাইকমিশনার লিলি নিকোলস লিখেছেনঃ “২০২৩ সালে অবাধ, সুষ্ঠু ও অন্তর্ভুক্তিমূলক নির্বাচন নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ কী ব্যবস্থা নেবে সে বিষয়ে আলোচনা করতে বাংলাদেশের নির্বাচন কমিশনের সাথে ১৪ জন রাষ্ট্রদূত এবং হাইকমিশনার বৈঠক করেছেন। স্পষ্টতই, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় নজর রাখছে!”

টুইটের শেষে কানাডিয়ান হাইকমিশনার হ্যাশট্যাগে গণতন্ত্র, স্বচ্ছতা এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক শব্দগুলো ব্যবহার করেন।ওদিকে, বৈঠকে উপস্থিত বাংলাদেশে নিযুক্ত নেদারল্যান্ডসের রাষ্ট্রদূত এনি গিয়ার্ড ভ্যান লিউয়েন টুইট করেছেনঃ “সত্যিই খুব ভালো একটা বৈঠক হলো। অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং চ্যালেঞ্জিং কাজের জন্য সিইসি’র সাফল্য কামনা করছি!”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *