জামিন চাইতে গিয়ে কারাগারে গেলেন মন্ত্রীর জামাই

নির্বাচনি সহিংসতার মামলায় জামিন চাইতে গিয়ে কারাগারে গেলেন হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী গোলাম রসুল

চৌধুরী রাহেল। সোমবার (৪ জুলাই) দুপুরে হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি আদালত-৫ এ আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন।

ম্যাজিস্ট্রেট ঝুমুর সরকার দীর্ঘ শুনানি শেষে তার জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। ২টার দিকে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

গোলাম রসুল চৌধুরী রাহেল নবীগঞ্জ শহরের হাসপাতাল সড়কের মৃত গোলাম রব্বানীর ছেলে এবং পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী শাহাব উদ্দিনের মেয়ের স্বামী।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, ২০২১ সালের পৌর নির্বাচনের আগের দিন ১৫ জানুয়ারি আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী নবীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক গোলাম রসুল চৌধুরী রাহেল বিএনপি মনোনীত

প্রার্থী ছাবির আহমেদ চৌধুরীর লোকজনের ওপর হামলা চালান। একপর্যায়ে ছাবির আহমেদ চৌধুরীর চাচাতো ভাই শফিক আহমেদ চৌধুরীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করেন। এতে তার নাড়িভুঁড়ি বের হয়ে যায়।

দ্রুত তাকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। দীর্ঘ চিকিৎসার পর তিনি সুস্থ হন। এ ঘটনায় ছাবির আহমেদ চৌধুরীর চাচাতো ভাই হাদিছ মিয়া চৌধুরী বাদী হয়ে গত বছরের ৩১ জানুয়ারি ১৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

তদন্ত শেষে গত ৩০ মার্চ চার্জশিট দেয় পিবিআই। চার্জশিট আদালত গ্রহণের পর আসামিদের বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট ইস্যু করা হয়। সোমবার মামলার ২নং আসামি রাহেল চৌধুরী আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে আদালত জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট বদরু মিয়া বলেন, ‘মামলার চার্জশিট দাখিলের পর আসামি গোলাম রসুল চৌধুরী রাহেলের নামে ওয়ারেন্ট ইস্যু হয়। সোমবার আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। পরে যুক্তিতর্ক শেষে আদালত আমাদের বক্তব্যে সন্তুষ্ট হয়ে তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *