দেশে করোনাভাইরাসে আশঙ্কাজনক ভাবে বাড়ল মৃ’ত্যু-আক্রান্ত

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ২৩১ জনের মৃ’ত্যু হয়েছে। নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১৪ হাজার ৮৪৪ জন।

রোববার (১ আগস্ট) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃ’ত্যু হয়। এরপর ধীরে ধীরে আক্রান্তের হার বাড়তে থাকে।

আরও পড়ুন :দেশে ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে। প্রতিদিনই গড়ছে শনাক্তের নতুন রেকর্ড। গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে সর্বোচ্চ ২৩৭ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

এর মধ্যে ২১৮ জনই রাজধানীর। রোববার স্বাস্থ্য অধিদফতরের এক অনলাইন বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়। এর আগে শনিবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের এক অনলাইন বুলেটিনে জানানো হয়,

গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে সর্বোচ্চ ১৯৬ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে ১৯৪ জনই রাজধানীর। ঢাকার বাইরে দুজন। শুক্রবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের এক অনলাইন বুলেটিনে জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় ১৭০ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন,

যা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেকর্ড। এরমধ্যে ঢাকায় ১৬৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন। ডেঙ্গুতে আক্রান্ত সবাইকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের এক অনলাইন বুলেটিনে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৯৪ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন। এদের সবাইকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এর আগের দিন বুধবার অধিদফতরের অনলাইন বুলেটিনে জানানো হয়- গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৫৩ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন। এদের সবাইকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকারই ১৫০ জন।

গত মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের অনলাইন বুলেটিনে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড ১৪৩ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হন। এরমধ্যে ১৪২ জনই ছিলেন রাজধানীর বাসিন্দা। তারা সবাই হাসপাতালে ভর্তি হন।