যেভাবে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় হাইড্রোজেন ওয়াটার

স্বাস্থ্য সুরক্ষায় পানির কোনো বিকল্প নেই। আর এই পানির মধ্যে লুকিয়ে আছে প্রকৃতির অপার বিস্ময়। পানির এই রহস্য ভেদ করে এতে লুকিয়ে থাকা উপাদানকে আরো শক্তিশালি করতে সুদীর্ঘ ২৫ বছর গবেষণা করেন জাপানি বিজ্ঞানী মি. তোজী নিশিদা।

তার দীর্ঘসময়ের এই গবেষণার ফল হানা এ-ক্লাস হাইড্রোজেন রিচ ওয়াটার ও গ্রিন টি। একে হেলথ কেয়ার ওয়াটারও বলা যেতে পারে। এই পানি পানের ফলে দীর্ঘজীবনও লাভ করা যায় বলে মতামত বিজ্ঞানীদের। এই পানির কেন এতো চাহিদা? এর বিশেষত্বই বা কী? হাইড্রোজেন পানি পানের ফলে সত্যি কি স্বাস্থ্যের কোনো উন্নতি হয়?

প্রথমেই জেনে নিন হাইড্রোজেন সমৃদ্ধ পানি কি? ভার্জিনিয়া কমনওয়েলথ বিশ্ববিদ্যালয়ের রাসায়নিক ও জীবন বিজ্ঞান প্রকৌশল বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক স্টিফেন এস ফং বলেন, সাধারণ পানিতে হাইড্রোজেনের ঘনত্ব খুবই কম। আর হাইড্রোজেন সমৃদ্ধ পানিতে গন্ধ ও স্বাদহীন হাইড্রোজেন মলিকিউলার মেশানো হয়।

তবে স্বাস্থ্যখাতে গবেষণারত প্রতিষ্ঠানগুলোও বলছেন, পানিতে হাইড্রোজেনের মতো উপাদানের সংযুক্তি মানব দেহের সুস্বাস্থ্যে আরো কার্যকরী। পাশাপাশি পানির গুণাগুণকেও বাড়িয়ে দেয় এই পানি।

এই পানি ও গ্রিন টি’তে থাকা হাইড্রোজেন আয়ন আমাদের মস্তিষ্কেও পৌঁছাতে সক্ষম, যেখানে অন্য কোনো ভিটামিন বা মিনারেল জাতীয় উপাদান সহজে পৌঁছাতে পারেন না।

ফলে শিশুদের মেধা বিকাশে এবং পূর্ণ বয়স্ক মানুষের স্মরণশক্তি বাড়াতে সহায়তা করে। নিয়মিত ব্যবহারে মানবদেহের নিষ্ক্রিয় কোষগুলো ধীরে ধীরে সক্রিয় ও কর্মক্ষম হয়।

ফলে পরিপাকতন্ত্র ও শ্বসনতন্ত্র আরও ভালোভাবে কাজ করে। বিজ্ঞানের এই অত্যাশ্চর্য আবিষ্কার ন্যানো হাইড্রোজেন মাইনাস ওয়াটার সম্প্রতি বাংলাদেশেও পাওয়া যাচ্ছে। বাংলাদেশে এর একমাত্র পরিবেশক সদাগর.কম।