Breaking News

বাংলাদেশী কুকুর রান্না হচ্ছে ভারতের অভিজাত হোটেলে!!!!

দেশের সীমান্তবর্তী এলাকা দিয়ে কুকুর পাচার হচ্ছে ভারতে।ভারতের মিজোরামের বিভিন্ন হোটেলে এসব কুকুর রান্না হচ্ছে বলে জানা গেছে।খাগড়াছড়ির দীঘীনালার বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে এসব কুকুর পাচার হচ্ছে।ভারতে এক একটি কুকুর বিক্রি হচ্ছে ৬-১০হাজার টাকায়। মিজোরাম সরকার সাম্প্রতিক সময়ে কুকুর বিক্রি নিষিদ্ধ করলেও বন্ধ হচ্ছে না বাংলাদেশী কুকুর পাচার।

পাহাড়ী এলাকায় বিভিন্ন স্থানে ফাঁদ পেতে কুকুর শিকার করছে একটি চক্র। কুকুর গুলো ফাঁদে আটকা পড়লে তাদের তাদের মুখ দড়ি দিয়ে বেঁধে দেয়া হয়।এরপর গলায় আঁটকে দেয়া হয় শুকনো বাঁশ। দীঘিনালার বোয়ালখালি, বাবুছড়া বাজার থেকে সবচেয়ে বেশি কুকুর ধরা হয়।

যা পরবর্তীতে মিজোরামের বিভিন্ন হোটেল ব্যবসায়ীদের কাছে চলে যাই। গত বুধবার দিঘীনালা থেকে ৫কুকুর শিকারী ৩৫টি কুকুর ধরে নিয়ে যাই, আর এর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে সকলের নজর কাড়ে।যা এতদিন চোখের অগোচরে ছিলো।

বাংলাদেশ প্রাণিকল্যাণ আইন ২০১৯ মতে মালিকবিহীন কুকুর হত্যা বা অপসারণ করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। যার সাজা ৬ মাস জেল এবং ১০ হাজার টাকা জরিমানা দীঘিনালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ উল্ল্যাহ গণমাধ্যমকে জানান, বিষয়টি আমি ফেসবুকে দেখেছি।

এরপর কোনো শিকারি সম্পর্কে সুনির্দিষ্ট তথ্য থাকলে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নেব। খাগড়াছড়ির জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস এ ঘটনায় বিস্ময় প্রকাশ করে গণমাধ্যমকে জানান, এই বিষয়টি আমি প্রথম শুনেছি। কোনো প্রাণীর সঙ্গে নিষ্ঠুর আচরণ করা যাবে না। এই বিষয়ে খোঁজ নিচ্ছি।

Check Also

জরুরী অবতরণ করতে গিয়ে রাজশাহীতে যেভাবে বিমান উলটে গেলো

আজ দুপুরে রাজশাহীতে একটি প্রশিক্ষনরত বিমান উলটে যায়। প্রতিদিনের মত আজকেও বিমানটি প্রশিক্ষনের কাজে নিযুক্ত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *