বন্ধ হচ্ছে সব আনঅফিসিয়াল অবৈধ মোবাইলসেট!!!

শুল্ক ফাঁকি দিয়ে আমাদানি করা সকল মোবাইলসেট বন্ধ করতে যাচ্ছে সরকার। এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসতে যাচ্ছে খুব দ্রুত। এর মাধ্যমে বিদশে থেকে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে আসা ফোনের আই ইএম নাম্বারের ফোন গুলো বন্ধ হয়ে যাবে। শুল্ক ফাঁকি দেয়া ফোন গুলো নিয়ে অনেক আগে থেকেই সোচ্চার ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রালয়।

কিন্তু এ প্রযুক্তিকে উন্নত করতে এতদিন কাজ করে আসছিলো মন্ত্রালয়টি। মন্ত্রালয় সুত্রে জানা যাই,একটি প্রযুক্তির মাধ্যমে অবৈধ ফোনের সিম গুলো বন্ধ করে দেয়া হবে।ফলে ঐ ফোনের সিম পরিসেবা বন্ধ থাকবে। বিটিআরসির সিনিয়র সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন খান বলেন, এমন বার্তা সরকার আগেই দিয়েছিল। চলতি বছরের অক্টোবরের মধ্যে এটি চালুর কথা ছিলো।

করোনার কারণে তা দেরি হচ্ছে। সকল প্রক্রিয়া প্রায় শেষ। আগামী বছরের শুরুর দিকে এটি বাস্তবায়িত হবে। এর আগে গ্রাহককে নোটিশ করেছিলো সরকার তাতে বলা হয়ছে মোবাইল ফোন কেনার আগে অবশ্যই আই এমই নাম্বার চেক করে কিনতে। বিআর টি তথ্য অনুযায়ী, দেশ আই এম ই নাম্বার নিবন্ধিত হয়ছে ১১৮.২২ মিলিয়ন।যা সরকারি ডাটাবেজে সংযুক্ত আছে।এসব মোবাইলের আইএমই নাম্বার অনুযায়ী বৈধ। যে কেউ ফোনে *#০৬# ডায়ল করে তার ফোনের আইএমই নাম্বার দেখতে পাবে।

এছাড়াও ফোনের মেসেজ অপশনে গিয়ে KYD লিখে আইএমই ১৬ডিজিটের নাম্বার লিখে পাঠাতে হবে১৬০০২ নাম্বারে তাহলে ফোনটি বৈধ কি না জানা যাবে। বি আর টিসি তথ্য মতে,দেশে প্রায় ব্যবহৃত ফোনের সংখ্যা ১০কোটি এর মধ্যে ৩০শতাংশ ফোন অবৈধ। সংস্থাটি গত বছরের ২২জানুয়ারি থেকে বৈব মোবাইল ফোনের ডাটাবেজ তৈরী করতে শুরু করেছে। ২০২২ এ সকল অবৈধ ফোন ধরতে সক্ষম হবে বলে জানানো হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *